আবুল খায়ের (AKS ) রডের দাম কত ২০২৪

আবুল খায়ের গ্রুপ বাংলাদেশের বৃহত্তম একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রাম অবস্থিত। এ শিল্প প্রতিষ্ঠানটি 1953 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বাণিজ্যিক শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্টিল, সিরামিকস,খাদ্যদ্রব্য,সিমেন্ট ও তামাকজাত পণ্য উৎপাদন করে থাকে। এটি বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি কাচামাল হিসেবে ইউরোপ এবং আমেরিকা থেকে কাচামাল রপ্তানি করে এবং উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে রড উৎপাদন করে থাকে। আর অনেকেই আবুল খায়ের রডের দাম সম্পর্কে জানতে চান ।

রড উৎপাদনের দিক থেকে, আবুল খায়ের রড অনেক বেশি জনপ্রিয়। আপনি যদি বিশাল বড় নির্মাণ স্থাপনা বা বড় বড় অট্টালিকা তৈরী করতে চান। তাহলে আপনি নিঃসন্দেহে আবুল খায়ের রড ব্যবহার করতে পারেন। আর বর্তমান সময়ে রডের ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে। পাশাপাশি এর দামও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আজকের এই পোস্টে আবুল খায়ের রডের দাম ২০২৪ নিয়ে আলোচনা করেছি। AKS রডের মূল্য জানতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

আবুল খায়ের রডের দাম ২০২৪

এই কোম্পানির স্টিলের পাশা-পাশি রড তৈরি করা হয়। যা দেশ ব্যাপী প্রচুর ব্যবহিত হচ্ছে। অনেক ছাদ তৈরির জন্য এই রড দিয়ে ডালাইয়ের কাজ করতেছে। অনেক আগে এই রডের মূল্য ছিলো ৭০ থেকে ৭২ টাকা প্রতি কেজি। ৭০,০০০ থেকে ৭২,০০০ হাজার টাকা প্রতি টন রডের মূল্য ছিলো। এর পর এই রডের দাম বেড়ে ৮০ থেকে ৮৫ টাকা হয়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে বাজারে এই মূল্য রড বিক্রি হতো। সর্বশেষ ২০২৪ সালে এই রডের মূল্য প্রতি কেজিতে ১০০ টাকা হয়েছে। পাইকারিতে ১ কেজি আবুল খায়ের রড ৯৮ -১০০ টাকা কেজি বিক্রি করা হয়। বাংলাদেশের সকল জেলায় একটি করে ডিলারের দোকান রয়েছে।

১ টন রড কত টাকা

বাংলাদেশে বিভিন্ন কোম্পানির রড রয়েছে। রডের দাম গুন গত মানের উপর নির্ভর করে থাকে। কিছু রড কেজিতে ৮৫ টাকা থেকে ৮৮ টাকা। আবার অন্য কোনো ব্রান্ডের রডের ১ কেজির দাম ৯০ টাকা। সে হিসেবে বিভিন্ন কোম্পানির ১ টন রডের দাম ভিন ভিন্ন। আবুল খায়ের ১ টন রডের মূল্য ৯৪,৫০০ টাকা। পাইকারি মূল্য ৯৩,৫০০ থেকে ৯৪,০০০ হাজার পর্যন্ত। আপনারা চাইলে এই রডের ডিলারের থেকে স্বল্প মূল্য রড কিনতে পারবেন।

  • AKS ১ টন রডের দাম ১০০০০০ টাকা
  • HKG রডের টন প্রতি দাম, ৯৭,০০০ টাকা
  • BSRM ১ টন রডের দাম ১০১০০০ টাকা
  • Hi teck রডের টন প্রতি দাম, ৯৮,০০০ টাকা
  • Anwar Ispat রডের টন প্রতি দাম ৯৯,৫০০ টাকা
  • King Stell রডের টন প্রতি দাম, ৯৭,০০০ টাকা
  • SSRM রডের টন প্রতি দাম, ৯৮,০০০ টাকা
  • CSRM রডের টন প্রতি দাম, ৯৭,০০০ টাকা
  • Jsrm রডের টন প্রতি দাম,৯৬,০০০ টাকা
  • MSW রডের টন প্রতি দাম, ৯৭,০০০ টাকা
  • ZSRM রডের টন প্রতি দাম, ৯৮,০০০ টাকা
  • GPH ১ টন রডের মূল্য ৯৯,৫০০ টাকা

AKS রডের আজকের দাম ২০২৪

এটি বাংলাদেশের একটি অন্যতম রড ব্রান্ড। খুব কম দামেই AKS রড কিনতে পারবেন।  ১ কেজি AKS রডের আজকের দাম ১০০ টাকা। যার আগের মূল্য ছিলো ৯২ থেকে ৯৫ টাকা। প্রতি কেজিতে ৫ থেকে ৬ টাকা করে বৃদ্ধি পেয়েছে। ১ টন AKS রডের দাম ১০০০০০ টাকা। তবে এর পাইকারি মূল্য ৯৮০০০ টাকা। বাংলাদেশে অনেক জেলায় এই ব্রান্ডের ডিলারশিপ রয়েছে। সেখান থেকে স্বল্প মূল্য এই রড গুলো কিনতে পারবেন। আবারো এই রডের দাম বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আজকের রডের দাম ২০২৪

আগের তুলনায় সকল ব্রান্ডের রডের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে কিছু উন্নতমানের রড রয়েছে যেগুলো কিছুটা কম দামে কিনতে পারবেন। নিচে কয়কটি রডের দাম এর তালিকা দিয়েছি। যা আজকের বাজারে এই দামে বিক্রি করা হচ্ছে। রড ক্রয় করার পূর্বে এই লিস্ট থেকে বিভিন্ন কোম্পানির রডের দাম সম্পর্কে জেনে নিন।

রডের নামটন রডেরমূল্য
King steem১ টন৯৭,০০০
Prime steel১ টন৯৮,০০০
Php১ টন৯৯,৫০০
Rrm১ টন৯৬,০০০
hrrm steel১ টন৯৫,০০০
SS steel১ টন৯৭,৫০০
Rani steel১ টন৯৯,৫০০
Baizid steel১ টন৯৮,৫০০
BSRM১ টন৯৯,৫০০
AKS১ টন৯৭,০০০
Ksrm১ টন৯৯,৫০০
Psrm১ টন৯৬,০০০
ksml১ টন৯৬,৫০০
Rahim১ টন৯৮৫০০
Vsl১ টন৯৫,৫০০
gph ispat১ টন৯৮,০০০
Anwar ispat১ টন৯৬,৫০০
Rsrm১ টন৯৮,০০০
zsrm১ টন৯৯,০০০

১ টন রডের দাম কত ২০২৪

বাজার নিয়মিত পরিবর্তন হওয়ার কারণে আবুল খায়ের রডের দাম পরিবর্তন হয়েছে। আগের থেকে এ রডের দাম কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এটি বাংলাদেশের রড শিল্পের মধ্যে শীর্ষস্থানীয় একটি কোম্পানি। দেখুন পানি রডের দাম কিছুটা বেশি হয় থাকে। তবে রোডের মান অনুযায়ী দাম একদম সঠিক। আবুল খায়ের কোটি টন রডের দাম বর্তমানে ৯৯ হাজার টাকা বিক্রি করা হয়ে থাকে। ক্রেতাগণ দের কাছ থেকে কিছু দোকানে ৯৯ হাজার টাকা দামে বিক্রি করা হয়।

রডের দাম কি কমবে

আগের থেকে রড উৎপাদন খরচ বেড়েছে। সেই সাথে এর কাচা মাল বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়। এদিকে ডলারের রেট আগের থেকে অনেকটা বেড়েছে। তাই বিদেশ হতে যে কাচা মাল গুলো আমদানি করা হয়, সেগুলোর খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। আবার রড তৈরিতে শ্রমিকের খরচ বাড়ানো হয়েছে। যদি রড তৈরির কাচা মাল, আমদানি খরচ ইত্যাদি কমে তাহলে বিক্রি মূল্য কমানো হবে। তাছাড়া রডের দাম আর কমবে না বরং বারতেই থাকবে। কমার ক্ষেত্রে কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা কমতে পারে। আবারো দাম ব্রিধি পেলে কেজিতে ৫ টাকা বাড়ানো হবে রডের মূল্য।

আবুল খায়ের রড কত টাকা কেজি

বড় বড় দালান কোঠা, অট্টালিকা তৈরিতে রোড এর কোন বিকল্প নেই। রডের বিকল্পে কোনমতেই এসব বড় বড় অট্টালিকা তৈরি সম্ভব নয়। শক্ত ও মজবুত বাড়ি তৈরি করতে শক্ত ও মজবুত রোডের প্রয়োজন হয়। তবে এসব শক্ত ও মজবুত  রড বাংলাদেশে বিভিন্ন রকমের পাওয়া যায়। আবুল খায়ের রডের পাশাপাশি বাংলাদেশের বিভিন্ন বড় বড় রডের প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তবে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠান ভেদে রডের মানও ভিন্ন ভিন্ন হয়।

তবে বাংলাদেশের ভেতরে আবুল খায়ের কোম্পানি সবচাইতে প্রতিষ্ঠিত একটি কোম্পানি । এবং এই কোম্পানির প্রত্যেকটি পণ্য বিশ্বমানের হয়ে থাকে। বিশেষ করে এই রড অনেক উন্নত এবং শক্ত ও মজবুত। বড় বড় অট্টালিকা, বিল্ডিং বা নির্মাণ স্থাপনা তৈরি করতে আবুল খায়ের রডের উপরে আস্থা রাখতে পারেন। আর এই পোস্টে আবুল খায়ের রডের দাম ২০২৪ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদেরকে জানিয়ে দেওয়া হবে আবুল খায়ের রডের সঠিক দাম কত। বর্তমানে আবুল খায়ের রডের দাম টন প্রতি ৯৯,৫০০ টাকা।

শেষ কথা

আজকের রডের বাজার দর সম্পর্কে এই পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করেছে। রড তৈরির উপাদান বৃদ্ধি পেলে আবারো এর দাম বেড়ে যেতে পারে। তাই আমার দেওয়া দামের সাথে বাজারে বিক্রি হওয়া রডের দাম এক নাও হতে পারে। আশা করছি পোস্ট টি আপনাদের ভালোলেগেছে এবং এই পোস্ট থেকে AKS, GPH, BSRM এবং আবুল খায়ের রডের দাম ২০২৪ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এই রকম বাজার দর নিয়ে আপডেট তথ্য জানতে আমার সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ।