টেলিটক 4G সিমের দাম কত ২০২৪

টেলিটক সিমের দাম কত? বাংলাদেশে ফাস্টেস্ট সিমের মধ্যে টেলিটক সিম অন্যতম। এটি একটি সরাকার দ্বারা পরিচালিত সরকারি সিম। তাই এই সিমের কল রেট  ও ইন্টারনেট খরচ কম হয়ে থাকে। বিভিন্ন সময়ে টেলিটক 4G সিমের মেলা হয়। সেখানে এই সিমের দাম ২০ থেকে ৩০ টাকা বিক্রি করা হয়। সেই সাথে আকর্ষণীয় সব ইন্টারনেট প্যাক ফ্রি দেওয়া হয়। আজকে 4G টেলিটক সিমের দাম ১৫০ টাকা। কিছু দিন আগে ই সিমের দাম ছিলো ১০০ টাকা।

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে এই সিম বিক্রি করা হয়। এই পোস্টে টেলিটক সিমের বর্তমান দাম কত? কিভাবে নতুন সিম কিনবেন এবং রেজিস্ট্রেশন করবেন সেই সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। টেলিটক সিমের গুরুত্বপূর্ণ কোড এবং ইন্টারনেট ও মিনিট অফার সম্পর্কে একটি তালিকা শেয়ার করেছি। কিভাবে কম দামে টেলিটক 4G সিম কিনবেন তা জানতে সম্পূর্ণ পোস্ট টি পড়ুন।

টেলিটক সিমের দাম কত

দ্রুতগামী নেটওয়ার্ক এবং ভয়েস কলের জন্য এই সিমটি অনেক সুবিধা জনক। যারা সরকারি ভাবে টাকা লেনদেন করে থাকে তারাই এই সিম বেশি ব্যবহার করে থাকে। এই সিমটি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দামে বিক্রি করা হয়। সিমটির স্থায়ী দাম ১৫০ টাকা। অনেক আগের ৮০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি করা হতো। বিভিন্ন মেলা উপলক্ষে সিমের দাম রাখা হয় ২০ টাকা। অনেক সময় ৫০ টাকায় টেলিটক সিম বিক্রি করা হয়। আবার কখনো ৬০ টাকা মোবাইল রিচার্জের সাথে সিমটি ফ্রি দেওয়া হয়।

টেলিটক 4G সিমের দাম ২০২৪

কম রেটে ভয়েস কল, এস এম এস এর জন্য এই সিম থেকে অনেক ভালো ভালো অফার পাওয়া যায়। যার কারণে সবাইক এই 4G সিমটি ব্যবহার করতে আগ্রহী হয়। বিভিন্ন অপারেটরের দোকানে সিম গুলো বিক্রি করা হয়। সিমের দাম ১৫০ টাকা মূল্য। অনেক জাইগায় সিমটি ২০০ থেকে ১৫০ টাকাও বিক্রি হয়। সেই সাথে মিনিট, এস এম এস এবং এম্বি ফ্রি দেওয়া হয়। সিম কেনার সময় আপনাকে ফ্রিতে রেজিস্ট্রেশন করে দেওয়া হবে।

টেলিটক সিম কোথায় পাওয়া যাবে

একটি সরকারি সিম হচ্ছে টেলিটক। যার কারণে এই সিমটি অনেক সহজেই কিনতে পারবেন। বাংলাদেশের সকল জেলায় এই সিমের বিক্রয় ক্রেন্দ্র রয়েছে। গ্রাহকদের সেবা প্রদানের লক্ষে কাস্টমার কেয়ার গঠন করা হয়েছে। আপনার নিকটস্থ সকল সিম বিক্রির দোকানে সিম গুলো পাবেন। এছাড়া অনেক সময় গন প্রচারের মাধ্যমে সিম গুলো বিক্রি করা হয়, সেখান থেকেও কিনতে পারবেন।

টেলিটক সিমের সুবিধা

এই অপারেটর টি মানুষের সেবা প্রদানের লক্ষেই তৈরি করা হয়েছে। সর্বনিম্ন কলরেট, ইন্টারনেট অফার প্রতিনিয়ত প্রদান করে যাচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন ফ্রি জমা দেওয়া, মোবাইল আকাউন্ট এর মাধ্যমে টাকা আদান-প্রদান করা আরও সহজ করেছে এবং খুব কম খরচ হচ্ছে। পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষনের আবেদন ফি এই সিমের মাধ্যমেই করা যায়, যা অন্য কোনো সিম গ্রহণ যোগ্য নয়। বর্তমানে মোবাইলে ভর্তির আবেদন টেলিটক সিম ব্যবহার করে করা যায়। কিন্তু অন্য কোনো সিমের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন না।

টেলিটক কোন সিম ভালো

টেলিটকের সকল গ্রুপ গুলোই অনেক ভালো। তবে কম খরচের দিক দিয়ে বর্ণমালা এই সিমটি বেশ ভালো। বাংলাদেশের বেশির ভাগ মানুষ এই বর্ণমালা সিমটি কিনে থাকে। সিমের দাম ১৫০ টাকা। অনেক সময় ২০০ বা ১৮০ টাকার মধ্যে সিম টি বিক্রি করা হয়। বিশেষ মূল্য ছারে সিমটি ২০ থেকে ৫০ টাকাও বিক্রি করা হয়ে থাকে। অনেক সময় ৬৯ টাকা রিচার্জের মাধ্যমে সিমটি ফ্রিতে কিনতে পাওয়া যায়। টেলিটক বর্ণমালা সিমের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় অনেক বেশি সুবিধা পাওয়া যায়।

টেলিটক ফ্রি সিমের অফার এবং নির্দেশনা

সিমটি ফ্রি পাবার জন্য গ্রাহককে ১০০ টাকা রিচার্জ করতে হবে। এই ১০০ টাকার মাধ্যমে ফ্রিতে সিম টি পেয়ে যাবেন। আপনার বালেঞ্চে ১০০ টাকা যোগ হবে। সেই সাথে মিনিট এবং ইন্টারনেট অফার দেওয়া থাকবে। ফ্রিতে কয়েকশ মিনিট এবং ১০ জিবি ইন্টারনেট পেয়ে যাবেন। আরও অফার কিভাবে পাবেন তা বিস্তারিত দেওয়া আছে দেখেনিন।

১০০ টাকা রিচার্জে (একবার রিচার্জে) রয়েছে

  • ১০০ টাকা মূল ব্যালেন্স,
  • ৩৩.৩৩ মিনিট
  • ৩৩ এসএমএস
  • ৫.৯৪ জিবি ডাটা
  • মেয়াদ ৩০ দিন

২য় মাসে :

  • ৩৩.৩৩ মিনিট
  • ৩৩ এসএমএস
  • ৫.৯৪ জিবি ডাটা
  • মেয়াদ ৩০ দিন

৩য় মাসে:

  • ৩৩.৩৩ মিনিট
  • ৩৩এসএমএস
  • ৫.৯৪ জিবি ডাটা
  • মেয়াদ ৩০ দিন

স্পেশাল ইন্টারনেট অফার

  • ২ জিবি ইন্টারনেট মাত্র ১৭ টাকা (সকল চার্জ অন্তর্ভুক্ত); মেয়াদ ১৫ দিন
  • অফারটি পেতে ১৭ টাকা রিচার্জ করুন।
  • স্পেশাল ইন্টারনেট অফারটি প্রতি ১৫ দিনে একবার, মাসে সর্বোচ্চ দুইবার নেওয়া যাবে
বিবরণরেইটসময়
ভয়েস কল (যেকোন অপারেটরে) ৪৭ পয়সা/মিনিট২৪ ঘণ্টা
পালস১ সেকেন্ড২৪ ঘণ্টা
এস এম এস (যেকোন অপারেটরে)২৫ পয়সা (বাংলা), ৫০ পয়সা (ইংরেজি)২৪ ঘণ্টা
পে-পার-ইউজ১৫ কেবি/ ১ পয়সা২৪ ঘণ্টা

টেলিটক বর্ণমালা অফার

অনেক সময় কম দামে টেলিটক বর্ণমালা অফার পাওয়া যায়। এর জন্য আপনাকে কিছু কোড ডায়াল করতে হবে। নিচে টেলিটক বর্ণমালা অফার মূল্য এবং তালিকা দেওয়া আছে। অফার সম্পর্কে জানতে নিচের দিকে খেয়াল করুন।

১ জিবি ইন্টারনেট ৭ দিন মেয়াদে মাত্র ২৪ টাকায় নিতে ডায়াল করুন *১১১*৬১১#

১ জিবি ইন্টারনেট ৩০ দিন মেয়াদে মাত্র ৪৬ টাকায় নিতে ডায়াল করুন *১১১*৬১২#

২ জিবি ইন্টারনেট ৩০ দিন মেয়াদে মাত্র ৮৩ টাকায় নিতে *১১১*৬১৩# ডায়াল করুন

৪জিবি ইন্টারনেট ৭ দিন মেয়াদে মাত্র ৬২ টাকায় নিতে *১১১*৬১৪# ডায়াল করুন

৫ জিবি ইন্টারনেট ১৫ দিন মেয়াদে ৯৬ টাকায় নিতে ডায়াল *১১১*৬১৫#

১০জিবি ইন্টারনেট ৩০ দিনের জন্য ১৮৬টাকায় নিতে ডায়াল করুন *১১১*৬১৬# কোড

১৭ টাকা রিচার্জ কররে প্রতিমাসে দুইবার ২ জিবি ইন্টারনেট পাবেন।

টেলিটক আগামী সিমের অফার

১ জিবি
টাকা : ২২
মেয়াদ : ৭ দিন
কোড : *১১১*৬০০#

১ জিবি
টাকা : ৪৫
মেয়াদ : ৩০ দিন
কোড : *১১১*৬০১#

২ জিবি
টাকা : ৮১
মেয়াদ : ৩০ দিন
কোড : *১১১*৬০২#

৪ জিবি
টাকা : ৫৫
মেয়াদ : ৭ দিন
কোড : *১১১*৬০৩#

৫ জিবি
টাকা : ৯১
মেয়াদ : ১৫ দিন
কোড : *১১১*৬০৫#

১০ জিবি
টাকা : ১৭৭
মেয়াদ : ৩০ দিন
কোড : *১১১*৬১০#

টেলিটক কাস্টমার কেয়ার যোগাযোগের নাম্বার ও ঠিকানা

কাস্টমারদের সেবা প্রদানের লক্ষে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় টেলিটক কাস্টমার কেয়ার তৈরি করেছে। এবং এর একটি হেড অফস ও সকল জেলেয় কয়কটি করে শাখা রয়েছে।  টেলিটক সিম সম্পর্কিত সমস্যার সমাধান পেতে আপনারা নিচের দেওয়া নাম্বারে যোগাযোগ করুন। সরাসরি যোগাযোগের জন্য এই ঠিকানায় চলে যান। নিচে টেলিটক কাস্টমার কেয়ার নাম্বার দেওয়া আছে দেখেনিন।

সাধারণ সেব:  ১২১
হেল্প লাইন [প্রিপেইড / অন্য অপারেটর]: ০১৫০০১২১১২১-৯
হেল্প লাইন [কর্পোরেট]: ২৬৭
হেল্প লাইন [টেলি চার্জ]:  ৮৫২
ওয়েবসাইটঃ https://www.teletalk.com.bd/bn/customer-care-center

শেষ কথা

কম দমে ভালো ভালো অফার উপভোগ করতে এই সিমটি ব্যবহার করতে পারেন। স্কুল বা কলেজ শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিটক বর্ণমালা অনেক কম রেটে ভয়েস কল, এস এম এস ও ইন্টারনেট ব্যবস্থা চালু করেছি। টেলিটক সিমের দাম অনেক সময় পরিবর্তিত হতে পারে। তাই আমার দেওয়া দামের সাথে এই সিমের মূল্য নাও মিলতে পারে। আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের ভালোলেগেছে এবং এই পোস্ট থেকে টেলিটক সিমের দাম কত এবং টেলিটক 4G সিমের দাম ও অফার মূল্য সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এই রকম আরও পোস্ট পেতে আমার সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ।